গোয়ালন্দঘাট পতিতালয়ের মেইন গেট (Goalanda Potitaloy main Gate) আসবেন কিভাবে ? দৌলতদিয়া যৌনপল্লী

গোয়ালন্দঘাট পতিতালয়ের মেইন গেট (Goalanda Potitaloy main Gate) আসবেন কিভাবে ? দৌলতদিয়া যৌনপল্লী

এই ভিডিওতে বিস্তারিত ভাবে তুলে ধরেছি কিভাবে এই পতিতালয় আসবেন ও মেইন গেট চিনতে পারবেন।

দৌলতদিয়া যৌনপল্লি বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় গণিকালয়। এটি এশিয়ার সবচেয়ে বড় গণিকালয়গুলোর একটি। এখানে প্রায় চার হাজার যৌনকর্মী পতিতাবৃত্তি পেশায় জড়িত।

দৌলতদিয়া পতিতালয়টি বাংলাদেশের রাজবাড়ী জেলার অন্তর্গত গোয়ালন্দ উপজেলায় অবস্থিত। গোয়ালন্দ উপজেলার একটি ইউনিয়ন হলো দৌলতদিয়া। দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে পতিতালয়টি অবস্থিত।

যেভাবে আসবেন ::

বাংলাদেশের প্রায় সব জেলা থেকেই এখানে খুবই সাচ্ছন্দে এখানে আসতে পারবেন । ময়মনসিংহ, ঢাকা, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের জেলা থেকে আসার জন্য প্রথমেই গাবতলি বাসস্টান্ডে চলে আসবেন । সেখান থেকে সেলফি পরিবহনে মাত্র ১২০ টাকা ভাড়া দিয়ে পাটুরিয়া ফেরিঘাটে আসবেন , তারপরে সেখান থেকে ফেরী বা লঞ্চে করে মাত্র ৪০ টাকাতে এই দৌলতপুর পৌঁছে যাবেন । তারপর রিক্সাতে মাত্র ১০ টাকা দিয়ে আপনি পতিতালয় এর গেটে পৌছে যাবেন। লজ্জা শরম না করে সোজা বলবেন পল্লীর গেটে নামবেন । লজ্জা করলে রিক্সাওয়ালারাই আপনাকে ঠকাবে ।

খুলনা, রাজশাহী এই বিভাগের জেলা থেকে আসতে পারবেন সহজেই, এখানকার জন্য সরাসরি ট্রেন রয়েছে। 

 পতিতাদের রেট

 বর্তমানে সব পতিতাদের রেট একই , সবার ৫০০ টাকা প্রতি সট । এখানে ঘন্টার কোন হিসেব নেই । তবে চাইলেই সারা রাতের জন্য মাত্র ২/৩/৪ হাজার টাকায় তাদের সাথে রাত কাটাতে পারবেন । 

বাংলাদেশে অনুমোদিত ১৪টি পতিতালয়ের মধ্যে দৌলতদিয়া পতিতালয় একটি। রাজবাড়ি জেলার দৌলতদিয়া পতিতালয় বাংলাদেশের তথা বিশ্বের সবচেয়ে বড় পতিতালয়গুলোর একটি। ১৯৮৮ সালের দিকে এটি প্রতিষ্ঠিত বলা হলেও উক্ত স্থানে বহুকাল আগে থেকেই পতিতাবৃত্তির সাথে জড়িত ব্যক্তিরা বসবাস করতেন এবং অনুমোদিত ও অবৈধ পতিতালয় হিসেবে বেআইনি ভাবে কার্যক্রম চালিয়ে আসছিলো। বর্তমানে এখানে দাপ্তরিক হিসেবে প্রায় দেড় হাজার যৌনকর্মী বসবাস করেন এবং প্রতিদিন প্রায় ২০০০ থেকে ৩০০০ জন ব্যক্তি এখানে যৌন সেবা নিতে আসেন। দৌলতদিয়ায় ‘মুক্তি মহিলা সমিতি’ নামে পতিতাদের একটি রেজিষ্টার্ড সংগঠন রয়েছে। এই সংগঠনের রিপোর্ট অনুযায়ী বর্তমানে এই পতিতালয়ে পতিতার সংখ্যা প্রায় চার হাজার। এখানে প্রায় তিনশ থেকে সাড়ে তিনশ সর্দারনী রয়েছে। এই সব সর্দারনীর আন্ডারে সর্বনিম্ন ৫ থেকে সর্বোচ্চ ৫০ জন করে পতিতা কাজ করেন। এইসব সর্দারনী বা বাড়িওয়ালীর প্রতিদিনের সর্বনিন্ম আয় ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা। ‍এছাড়াও অবস্থাশালী বাড়িওয়ালীদের আয় দিনে আনুমানিক ২ থেকে ৩ লক্ষ টাকা।

See also  ময়মনসিংহের পুরনো ঠাকুর বাড়িতে হয় দেহ ব্যবসা!

গোয়ালন্দঘাট পতিতালয়ের মেইন গেট (Goalanda Potitaloy main Gate) আসবেন কিভাবে ? দৌলতদিয়া যৌনপল্লী

যৌনপল্লী,গোয়ালন্দঘাট,পতিতালয়,Goalanda Potitaloy main Gate,পতিতালয়ের মেইন গেট,দৌলতদিয়া যৌনপল্লী,দৌলতদিয়া,দৌলতদিয়া পতিতালয়,দৌলতদিয়া দেহ ব্যবসা,দৌলতদিয়া পল্লী,দৌলতদিয়া পতিতা,দৌলতদিয়া কাহিনী,বোর্ডিং দৌলতদিয়া,দৌলতদিয়া যৌনপল্লী,পতিতা পল্লী দৌলতদিয়া,দৌলতদিয়া কিভাবে যাবো,দৌলতদিয়া আবাসিক হোটেল,দৌলতদিয়া পতিতালয় লাইভ,দৌলতদিয়া পতিতালয় ঠিকানা,দৌলতদিয়া ঘাট,দৌলতদিয়া পতিতালয়ের নাম্বার,ঢাকা থেকে কিভাবে দৌলতদিয়া যাবো,দৌলতদিয়া পতিতা,Doulotdia 2021