সৌদি আরব রেস্টুরেন্ট ভিসা বিস্তারিত তথ্য

সৌদি আরব রেস্টুরেন্ট ভিসা খরচ

সৌদি আরব যাওয়ার আগে আপনাকে রেস্টুরেন্ট ভিসা খরচ সম্পর্কে জানতে হবে। অন্যান্য দেশের তুলনায় আপনি খুব কম খরচে সৌদি আরব রেস্টুরেন্ট ভিসা নিয়ে যেতে পারবেন। সৌদি আরবে রেস্টুরেন্ট ভিসা নিয়ে গেলে আপনার সর্বোচ্চ তিন লক্ষ টাকা খরচ হতে পারে। কাজের ধরন ও মেয়াদের উপর আপনার ভিসা খরচ নির্ভর করবে।

সৌদি আরব রেস্টুরেন্ট ভিসার কাগজপত্র

আপনি যদি সৌদি আরব রেস্টুরেন্ট ভিসা করতে চান। তাহলে আপনাকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র আগে থেকে সংগ্রহ করতে হবে। সৌদি আরব রেস্টুরেন্ট ভিসার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিম্নরূপ:-
  1. প্রথমে আপনার একটি বৈধ পাসপোর্ট লাগবে। পাসপোর্ট এর মেয়াদ ন্যূনতম দুই বছর।
  2. ন্যাশনাল আইডি কার্ড/ড্রাইভিং লাইসেন্স।
  3. অভিজ্ঞতা সনদ, আপনার যদি রেস্টুরেন্ট কাজে কোন অভিজ্ঞতা থেকে থাকে। তাহলে অভিজ্ঞতা সনদ জমা দিতে পারেন।
  4. আবেদনকারীর সদ্যতোলা ৫ কপি সাদা ব্যাকগ্রাউন্ড এর পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  5. নিজের থানা থেকে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট।
  6. আবেদনকারীরা অবশ্যই মেডিকেল চেকআপ করতে হবে। শারীরিক চেকআপ করার পর মেডিকেল সার্টিফিকেট জমা দিতে হবে।
  7. বর্তমান সময়ে দেশের বাইরে যাওয়ার জন্য করোনা ভাইরাসের টাকা গ্রহণ করতে হবে।

সৌদি আরব রেস্টুরেন্ট কাজের বেতন

আপনি যদি সৌদি আরবের ভিসা নিয়ে যেতে চান তাহলে অবশ্যই বেতন কতটা জানতে হবে। কারণ আপনি সৌদি আরব যাচ্ছেন শুধু টাকা উপার্জন এর জন্য। আপনার যদি মাসিক উপার্জন জানা না থাকে তাহলে অনেক পিছিয়ে থাকবেন। বাংলাদেশী টাকায় আপনি প্রত্যেক মাসে রেস্টুরেন্টে কাজ করে সর্বনিম্ন ৩৫ হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এছাড়াও রেস্টুরেন্ট এর কাজ করলে আপনি বিভিন্ন কাস্টমারের কাছ থেকে বোনাস টাকা পাবেন। এগুলো আপনার এক্সট্রা ইনকাম থাকবে।
সৌদি আরব হোটেল ভিসা করার আগে আপনাকে ইংরেজি ভাষার প্রতি বেশি খেয়াল রাখতে হবে। যারা ইংরেজি ভাষায় কাস্টমারের সাথে কথা বলতে পারবে। তাদের কিন্তু আর হোটেল পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করতে হবে না। আপনাকে হোটেল কোম্পানি ওয়েটারের কাজ দেবে।

সৌদি আরব হোটেল ভিসার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

  • বর্তমান সময়ে দেশের বাইরে যাওয়ার জন্য করোনা ভাইরাসের টাকা গ্রহণ করতে হবে।
  • প্রথমে আপনার একটি বৈধ পাসপোর্ট লাগবে। পাসপোর্ট এর মেয়াদ ন্যূনতম দুই বছর।
  • ন্যাশনাল আইডি কার্ড/ড্রাইভিং লাইসেন্স।
  • অভিজ্ঞতা সনদ, আপনার যদি রেস্টুরেন্ট কাজে কোন অভিজ্ঞতা থেকে থাকে। তাহলে অভিজ্ঞতা সনদ জমা দিতে পারেন।
  • আবেদনকারীর সদ্যতোলা ৫ কপি সাদা ব্যাকগ্রাউন্ড এর পাসপোর্ট সাইজের ছবি।
  • নিজের থানা থেকে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট।
  • আবেদনকারীরা অবশ্যই মেডিকেল চেকআপ করতে হবে। শারীরিক চেকআপ করার পর মেডিকেল সার্টিফিকেট জমা দিতে হবে।
See also  আমি ছেলে পতিতা হতে চাই কিভাবে হবেন জেনে নিন ?

 

আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন