শহরে আবাসিক হোটেলে জমজমাট দেহ ব্যবসা

শহরে আবাসিক হোটেলে জমজমাট দেহ ব্যবসা

শহরে আবাসিক হোটেলে জমজমাট দেহ ব্যবসা

হবিগঞ্জ জেলার বিভিন্ন আবাসিক হোটেল গুলো যেন এখন অসামাজিক কর্মকান্ডের অভয়ারণ্য স্থান হিসেবে পরিনত হয়েছে। জমজমাট হয়ে উঠেছে দেহ ব্যবসা। এ সব বিষয় নিয়ে বিভিন্ন স্থানীয় পত্রিকায় কিছু দিন পর পর এসব অসামাজিক কর্মকান্ডের কথা লিখা হলে ও প্রসাশনের টনক যেন কিছুতেই নড়ছে না। এতে যুবক-যুবতীরা বিপথগামী হচ্ছে। সম্প্রতি শায়েস্তাগঞ্জ থানা ১টি অভিযান পরিচালনা করে ১৫ যুবক যুবতী ১৫ কে আটক করলেও হোটেল ম্যানেজার এবং মালিককে রহস্যজনক ভাবে ছেড়েও দেওয়া হয়। আটক কাউকে রাতে মুছলেকা রেখে ছেড়ে দেওয়া হয়। সচেতন মহল এখন মনে করছেন, ঐ সব আবাসিক হোটেল গুলোকে সিলগালা করা উচিত। এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অসামাজিক কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে যাকে পাবে তাকেই সাথে সাথে কারাদন্ড দেওয়ার দরকার। এই কাজ এখন থেকেই যদি না করা হয় তাহলে যুব সমাজ ধ্বংস হতে বেশী দিন লাগবে না।
অনেকেই মন্তব্য করে বলেন, এভাবে চলতে থাকলে দেখা যাবে প্রসাশনের নাকের সামনে দিয়েই চলছে এই সব কর্মকান্ড। আর দেশ চলে যাবে অন্ধকারের এক অন্য পৃথিবীতে।

Source: https://www.habiganjexpress.com/?p=35323

See also  এ কী চলছে কুমিল্লার আবাসিক হোটেলগুলোতে?

আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন