পশ্চিমা কালচারে মেতে উঠেছে হবিগঞ্জ \ শহরের বিলাসবহুল হোটেল ও একাধিক আবাসিক ভবনে চলছে দেহ ব্যবসা

পশ্চিমা কালচারে মেতে উঠেছে হবিগঞ্জ \ শহরের বিলাসবহুল হোটেল ও একাধিক আবাসিক ভবনে চলছে দেহ ব্যবসা

পশ্চিমা কালচারে মেতে উঠেছে হবিগঞ্জ। শহরের বিলাসবহুল হোটেল ও একাধিক আবাসিক ভবনে চলছে জমজমাট দেহ ব্যবসা। বিলাস বহুল হোটেল, ছোটখাট হোটেল, বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে বাড়া নিয়ে স¤প্রতি দেহ ব্যবসা জমজমাট হয়ে উঠে। এ সব হোটেল ও বাসায় পুলিশের নজরধারী না থাকায় কল গার্ল ও খদ্দেররা নিরাপদ আশ্রয় হিসেবে ব্যবহার করছে অপরাধিরা। এতে করে কতিপয় হোটেল মালিক, ম্যানাজার ও ওই ব্যবসার সাথে জড়িত বাসার লোকজন বানিজ্য করছে হাজার হাজার টাকা। স¤প্রতি হবিগঞ্জ শহরের ফুটপাত ও কয়েকটি হোটেলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে খদ্দেরসহ কলগার্লদের আটক করে। এর পরিবর্তন হয় নিম্নমানের হোটেলের দেহ ব্যবসা। তারা নতুন স্থান নির্ধারন করে বিলাসবহুল হোটেল ও আবাসিক কিছু ভবনে শুরু হয় দেহ ব্যবসা। হবিগঞ্জ শহরের শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত যে কয়টি বিলাসবহুল হোটেল রয়েছে এর মধ্যে অধিকাংশ হোটেলেই এসব ব্যবসা চলছে বলে অভিযোগ করেন ওই হোটেল এলাকার বাসিন্দারা। দেহ ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ছেন প্রবাসীর স্ত্রী, বিভিন্ন কলেজের শিক্ষার্থীসহ উঠতি বয়সের যুবক-যুবতিরা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন শিক্ষার্থী জানান, হোটেল মালিক, ম্যানাজার ও বাসায় বসবাসকারী ওই লোকজনকে মোটা অংকের টাকা দিয়ে এসব অপকর্ম করা হয়ে থাকে। ওই সকল কলগার্লদের সাথে যোগাযোগের জন্য ফোন নাম্বার থাকে হোটেল মালিক, ম্যানেজারদের কাছে। আর এ ব্যবসা চালিয়ে যেতে পুলিশের কতিপয় কিছু সদস্যকে দেয়া মাসিক উৎকুচ। কলগার্লদের সাথে সখ্যতা রয়েছে খোদ পুলিশের কিছু নামধারী সোর্সদের।

Source: https://www.habiganjexpress.com/?p=39690

 

See also  মানিকগঞ্জ আবাসিক হোটেল নাকি পতিতালয় দেহ ব্যবসা । নামকরনের ইতিহাস । Manikjganj Deh Hotel vara

আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন