নোয়াখালীতে দেহ ব্যবসায় রাজি না হওয়ায় গৃহবধূকে নির্যাতন

নোয়াখালীতে দেহ ব্যবসায় রাজি না হওয়ায় গৃহবধূকে নির্যাতন

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে স্বামীর কথা মত দেহ ব্যাবসা করতে রাজি না হওয়ায় স্বামী ও শ্ব শ্বর বাড়ীর লোকজনের হাতে নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছেন গৃহবধূ। নিজের নির্যাতনের চিত্র তুলে ধরে ঘটনার পুরো বর্ণনা দিয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন ওই গৃহবধূ।

এ ব্যাপারে গৃহবধূ ৭ অক্টোবর ৫ জনকে আসামি করে চর জব্বার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে বাড়িতে গেলে তাকে পূনরায় মারধর করে আহত করেন স্বামী জয়নাল। অপরাধীরা গৃহবধূকে বিভিন্ন মাধ্যমে গুম খুনের হুমকি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন নির্যাতিতা নারী। লিখিত অভিযোগের ৭২ ঘন্টা পার হয়ে গেলেও অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার না করায় নির্যাতিতা পালিয়ে বেড়াচ্ছে। এমন ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় প্রকাশের পর পুলিশ শুক্রবার বিকেলে গৃহবধূর স্বামী জয়নালকে গ্রেপ্তার করেছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, নির্যাতিতা তার ওপর ঘটে যাওয়া নির্যাতনের বর্ণনা দিচ্ছেন। এসময় সে জানায়, ২০১৫ সালে সুবর্ণচর উপজেলার চরক্লার্ক ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ চরক্লার্ক গ্রামের মৃত মনির আহম্মেদের ছেলে জয়নাল আবেদিন (৩৭)’এর সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর সে জানতে পারেন জয়নাল এর আগেও একটি বিয়ে করেছেন এবং ওই ঘরে ২ টি সন্তান রয়েছে। বিয়ের ৩ মাস পর থেকে ব্যবসা করার নাম করে নির্যাতিতা নারীর কাছ থেকে একাধিকবার ৮০ হাজার টাকাও নেয় জয়নাল।

এক বছর ধরে যৌতুকের দাবিতে জয়নাল আবেদিন ও তার বড় ভাই মাঈন উদ্দিন (৪০), জসিম উদ্দিন (৪৩), মাঈন উদ্দিনের ছেলে তারেক (১৯) একাধিকবার শারিরীক ও অমানসিক নির্যাতন করে। গত ৫ অক্টোবর পূনরায় তাকে যৌতুকের জন্য মারধর করে স্বামী জয়নাল আবেদিন।

সে জানায় গত ৩/৪ মাস ধরে তার স্বামী তার পরিচিত লোকদের এনে তাদের সাথে টাকার বিনিময়ে রাত কাটাকে বাধ্য করার চেষ্টা করেন, এতে সে রাজি না হলে শুরু হয় নির্মম নির্যাতন। মেয়ের ওপর এমন নির্যাতনের খবর পেয়ে তার মা মেয়েকে স্বামীর বাড়ী থেকে নিয়ে আসতে গেলেও অভিযুক্তরা তাকেও পিটিয়ে আহত করে। পরে কৌশলে তারা জয়নালের বাড়ী থেকে পালিয়ে এসে চরজব্বার থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

See also  খাগড়াছড়ির যেসব আবাসিক হোটেলে অবৈধ দেহ ব্যবসা চলে | Khagrachari Abasik Hotel

চর জব্বার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিল জানান, অভিযোগ ৭ অক্টেবর করা হলেও কিছু ভুল থাকায় আজ শুক্রবার সকালে তা সংশোধন করে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে এবং বিকেলে অভিযুক্ত আসামি জয়নালকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Source:: https://www.amarsangbad.com/