গোপালগঞ্জে দেহ ব্যবসার অভিযোগে ৪ যুবতী গ্রেপ্তার

Auto Draft

গোপালগঞ্জ শহরের মিয়াপাড়া জাহিদুল ইসলামের বাড়ির প্রবাসী দেলোয়ারের স্ত্রীর ভাড়া বাসা থেকে দেহ ব্যবসার অভিযোগে চার যুবতীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল  গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পুলিশ ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মক্ষিরাণী পুথিসহ (২৮) ৪ যুবতীকে উদ্ধার করে। এরমধ্যে মক্ষিরাণীর বিরুদ্ধে দেহ ব্যবসার অভিযোগ পাওয়া গেছে। দীর্ঘদিন ধরে তিনি বিভিন্ন জায়গা থেকে অভাবী তরুণীদের এনে দেহ ব্যবসা করান বলে জানা গেছে।

সদর থানার এস আই শাহ আলম সাংবাদিকদের জানান,  দীর্ঘদিন ধরে মক্ষিরাণী পুথি বিভিন্ন স্থান থেকে টাকার লোভ দেখিয়ে সুন্দরী মেয়েদের এনে দিনের পর দিন দেহ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। এস আই শাহ আলমের নেতৃত্বে এক দল পুুলিশ জাহিদুল ইসলামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মক্ষিরাণী পুথিসহ চার জনকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে।

তিনি জানান, এদেরকে ২ জানুয়ারি আদালতে প্রেরণ করা হবে। শহরের অনেক পাড়াতেই এ ধরনের ব্যবসা চলছে। আমরা চিহ্নিত করে এদেরকে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চালাচ্ছি। এরা শহরের পরিবেশটাকে নষ্ট করছে। এমন কি এ ধরনের দেহ ব্যবসা শহরের বিবিন্ন হোটেলে দিনের আলোতে অহরহ চলছে। আমরা এ ব্যবসা বন্ধের চেষ্টা চালাচ্ছি।

Source:: https://old.dhakatimes24.com/2016/01/01/96966

 

See also  চাঁদপুর লঞ্চের কেবিনে মেয়ে দিয়ে দেহ ব্যবসা। Chandpur (Chadpur) Deh bebsa

আমাদের ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন